সহজে জয় পেল ভারত

0
135

প্রথম ম্যাচ বৃষ্টিতে পণ্ড হলেও দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে টি-২০ সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল ভারত। মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) হোলকার স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কাকে সাত উইকেটে হারায় টিম ইন্ডিয়া। ১৫ বল বাকি থাকতেই লঙ্কান বোলার কুমারাকে ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ জিতে নেন কোহলি।

এদিন, ইন্দোরে টস জিতে রান তাড়া করার সিদ্ধান্ত নেন ক্যাপ্টেন কোহলি। বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে চাপের মধ্যে কীভাবে তরুণরা ম্যাচ বের করতে পারে তাই দেখতে চেয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক। টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং নেওয়া প্রসঙ্গে এমনটাই জানিয়েছিলেন বিরাট।

১৪৩ রান তাড়া করতে নেমে ১৭.৩ ওভারে ম্যাচ জিতে নেয় ভারত। রোহিত শর্মার অনুপস্থিতিতে লোকেশ রাহুলের সঙ্গে এদিন ভারতীয় ইনিংস শুরু করেছিলেন শিখর ধাওয়ান। শুরুটা মন্দ হয়নি ভারতের। ওপেনিং জুটিতে ৭১ রান যোগ করে ভারতের জয়ের রাস্তা তৈরি করে দেয় রাহুল-ধাওয়ান জুটি। কিন্তু ব্যক্তিগত ৪৫ রানে ডি’সিলভার বলে আউট হয়ে ডাগ-আউটে ফেরেন রাহুল। ৩২ বলে ৪৫ রানের ইনিংসে ৬টি বাউন্ডারি হাঁকান রাহুল।

রাহুল আউট হওয়ার পর নিজে না এসে শ্রেয়াস আইয়ারকে পাঠান কোহলি, ধাওয়ানের সঙ্গে শ্রেয়াস ইনিংসকে এগিয়ে নিয়ে যান। কিন্তু ধাওয়ান এলবিডব্লিউ হয়ে ডাগ-আউটে ফেরার পর ক্রিজে আসেন কোহলি। শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ইনিংস খেলেন বিরাট। শেষ পর্যন্ত ১৭ বলে দু’টি ছক্কা ও একটি বাউন্ডারিসহ ৩০ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন কোহলি। শ্রেয়াস অপরাজিত থাকেন ৩৪ রানে। ২৬ বলে তিনটি চার ও একটি ছয় মারেন তিনি।

প্রথম ব্যাটিং করে ৯ উইকেট ১৪২ রান করে শ্রীলঙ্কা। সর্বোচ্চ ৩৪ রান করেন কুশল পেরেরা। ভারতের হয়ে সফলতম বোলার শার্দুল ঠাকুর। চার ওভার হাত ঘুরিয়ে মাত্র ২৩ রান খরচ করে তিনটি উইকেট তুলে নেন এই ডানহাতি পেসার। এছাড়া চার মাস পর টিম ইন্ডিয়ার জার্সিতে মাঠে ফেরা জসপ্রীত বুমরাহ চার ওভারে ৩২ রান দিয়ে একটি উইকেট নেন। তবে চার ওভারে মাত্র ১৮ রান দিয়ে দু’টি উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা হন নভদীপ সাইনি। আগামী শুক্রবার সিরিজের শেষ ম্যাচ হবে পুনেতে।

 

Print Friendly, PDF & Email